আর্জেন্টিনার পক্ষে সিদ্ধান্ত দেয়ায় অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ হলেন রেফারি

কাতার বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে ফেলেছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। ব্রাজিল সে আনুষ্ঠানিকতা বেশ আগেই সেরে নিয়েছে। আর আর্জেন্টিনা গতকাল ঘরের মাঠে ব্রাজিলের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে অন্তত চারে থাকা নিশ্চিত করেছে।

ম্যাচে দুই দলের কেউই প্রাধান্য বিস্তার করতে পারেনি। কিন্তু ম্যাচের গল্পটা অন্য রকম হতেও পারত। প্রথমার্ধেই ১০ জনের দল হয়ে যেতে পারত আর্জেন্টিনা। কিন্তু স্বাগতিক দলের নিকোলাস ওতামেন্দিকে লাল কার্ড দেখাননি রেফারি। এমনকি ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি রিপ্লে দেখেও সিদ্ধান্ত বদলাননি।

এই ঘটনায় উরুগুয়ের রেফারি আন্দ্রেস কুনিয়া ও ভিএআর সহকারী এস্তেবান অস্তোহিচকে শাস্তি দিয়েছে কনমেবল রেফারি কমিশন। অনির্দিষ্টকালের জন্য এ দুজনকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

গতকাল ম্যাচের ৩৪ মিনিটে বল নিয়ে ব্রাজিল ডি-বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার রাফিনিয়া। লিডসের এই ফরোয়ার্ড সেখানে বল হারিয়ে ফেললে বল দখলে নেন সাবেক ম্যানচেস্টার সিটি ডিফেন্ডার ওতামেন্দি। রাফিনিয়া আবার বলের দখল নিতে ছুটে যান। ডি-বক্সের একটু বাইরে ওতামেন্দি রাফিনিয়ার মুখে কনুই দিয়ে আঘাত করেন। ইচ্ছাকৃত এমন ফাউলের শাস্তি লাল কার্ড।

বেশ কয়েকটি অ্যাঙ্গেল থেকে ঘটনা দেখলেও ওতামেন্দির আগ্রাসী আচরণ এবং এ কারণে আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডারের যে লাল কার্ড পাওয়া উচিত, সেটা ম্যাচ রেফারিকে জানাননি ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট। অথচ আঘাতে রাফিনিয়ার মুখ থেকে রক্ত ঝরছিল। ম্যাচের বাকি সময় মুখে ব্যান্ডেজ পরে খেলেছেন এই ফরোয়ার্ড। পরে জানা গেছে, রক্ত বন্ধ করতে রাফিনিয়াকে পাঁচটি সেলাই নিতে হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *